বুধবার, ২২ মে ২০২৪, ১০:৪০ পূর্বাহ্ন
সর্বশেষ :
শার্শা উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে সোহরাব চেয়ারম্যান ,ভাইস চেয়ারম্যান রহিম ও সালমা বিজয়ী আজ ঝিনাইদহের দুইটি উপজেলায় নির্বাচন হরিণাকুন্ডু ও শৈলকুপা উপজেলায় আ’লীগে আ’লীগে টক্কর ঝিনাইদহে মাস ব্যাপী সাঁতার প্রশিক্ষণের উদ্বোধন ঝিনাইদহ প্রেসক্লাবে এক নারীর সংবাদ সম্মেলন এমপির নির্দেশে সামটায় উপজেলা নির্বাচন প্রস্তুতি সভা প্রধানমন্ত্রী চান বাংলাদেশের সকল মানুষ এক ছাতার নিচে বাস করবে-পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী বিদেশে লোক পাঠানোর নামে প্রতারণা, থানায় অভিযোগ আশীর্বাদের ৪ দিন পর অন্ত কুন্ডুর মৃত্যু নিয়ে ধোঁয়াসা, পরিবারটিতে চলছে শোকের মাতম নাগেশ্বরীতে পরিবার পরিকল্পনা বিষয় কর্মশালা অনুষ্ঠিত ঝিনাইদহে নিরাপদ ও কোয়ারেন্টাইন পোকামাকড় মুক্ত আম, সবজি ও রপ্তানি বিষয়ক কর্মশালা অনুষ্ঠিত

ঝিনাইদহে এক নারীর মুখে লম্বা কাঁচা পাকা দাঁড়ি নিয়ে নিজেকে ২৫ বছর আড়ালে রেখেছেন!

বসির আহাম্মেদ,ঝিনাইদহ প্রতিনিধি।
  • Update Time : রবিবার, ২২ অক্টোবর, ২০২৩
  • ১০৭ Time View

ঝিনাইদহে এক নারীর মুখে লম্বা কাঁচা পাকা দাঁড়ি নিয়ে নিজেকে ২৫ বছর আড়ালে রেখেছেন! ঝিনাইদহ শহরের পৌর এলাকার ১ নং ওয়ার্ডের পবহাটী গ্রামের একটি পোল্ট্রি খামারে একজন নারী শ্রমীক হিসাবে কাজ করেন রুমা বেগম। দুর থেকে দেখলে মনে হবে বয়োবৃদ্ধ একজন পুরুষ মানুষ। মুখে তার লম্বা কাঁচা পাকা দাঁড়ি। নারী পোষাকে আবৃত্ত দেহ। প্রথম দেখায় যে কেউ ভড়কে যেতে পারেন। কিন্তু না। তিনি এই লম্বা দাড়ি নিয়ে নিজেকে ২৫ বছর আড়ালে রেখেছেন । ৬৪ বছরের এই নারীর নাম রুমা বেগম। তিনি ঝিনাইদহ সদর উপজেলার কালা লক্ষিপুর গ্রামের হবিবর জমাদ্দারের মেয়ে। বর্তমান তিনি ঝিনাইদহ শহরের পৌর এলাকার ১ নং ওয়ার্ডের পবহাটী গ্রামের একটি পোল্ট্রি খামারে নারী শ্রমীক হিসাবে কাজ করেন। রুমা বেগম জানান, ১৯৯৬ সালে পেটে টিউমার হয়। টিউমার অপারেশনের পর তার শারীরিক পরিবর্তন হতে থাকে। সার্জারি করে হাসপাতাল থেকে ফেরার কিছুদিন পর মুখে দাঁড়ি গজাতে শুরু করে। সেই থেকে তিনি সবার লোকচক্ষুর অন্তরালে চলে যান। সব সময় মুখমন্ডল ঢেকে চলাফেরা করতেন। কিন্তু সম্প্রতি স্ট্রোকে আক্রান্ত হলে আর মুখ ঢেকে রাখতে পারেন না। বৃদ্ধা রুমা বেগম জানান, ১৯৭১ সালে মাত্র ১২ বছর বয়সে তার বিয়ে হয়। ১০ বছর পর মারা যান স্বামী। প্রথম স্বামীর ঘরে কোন সন্তান ছিল না। এরপর দ্বিতীয় বিয়ে হয় মাগুরায়। সে স্বামীও ডায়রিয়া রোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেন। পরিবার থেকে আবারও সদর উপজেলার বিষয়খালী গ্রামে বিয়ে দেন। কিন্তু সতিনের সংসার বলে তিনি আর তৃতীয় স্বামীর বাড়ি যাননি। রুমা বেগম জানান, এক রাতে তিনি নিজের মুখমন্ডলে দাঁড়ি গজানোর স্বপ্ন দেখেন। সকালে মুখে হাত দিয়ে দেখেন মুখভর্তি দাঁড়ি গজিয়েছে। দাঁড়ি ওঠার পর তিনি খুব কান্নাকাটি করেছেন। প্রতিবেশি বিল্লাল হোসেন জানান, রুমা বেগম এলাকার নারীদের কোরআন ও নামাজ শিক্ষা দেন। নারীদের বিভিন্ন প্রয়োজনে সহযোগিতা করেন।  জীবনের শেষ বেলায় এসে তিনি শহরের পবহাটী গ্রামে একটি পল্ট্রি খামারে কাজ করছেন। অবসর সময়ে তিনি সেলাই করেন নকশী কাঁথা। রুমা বেগমের মুখে দাঁড়ি গজানো নিয়ে যশোর আদ-দ্বীন হাসপাতালের গাইনি বিভাগের অধ্যাপক ডাঃ হাসানুজ্জামান বলেন, হরমন জনিত কারণে তার মুখে দাঁড়ি গজিয়েছে। হতে পারে রুমা বেগমের পেটে যে টিউমারটি ছিল সেটা হরমন নিঃশ্বরন টিউমার। তিনি বলেন, দেহে পুরুষ হরমনের আধিক্য থাকার কারণে রুমা বেগমের মুখে দাড়ি গজাতে পারে। তবে এক্ষেত্রে পরীক্ষা নিরীক্ষা করে সঠিক কারণ নির্নয় করা যেতে পারে বলেও ডাঃ হাসানুজ্জামান মনে করেন।

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category
© All rights reserved © 2023 SN BanglaNews
কারিগরি সহযোগিতায়: