সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ০২:৫৭ পূর্বাহ্ন
সর্বশেষ :
প্রধানমন্ত্রী যার যার কৃষ্টি ও সংস্কৃতি পালন করার স্বাধীনতা দিয়ে অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ নিশ্চিত করেছেন-পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী রাজধানীতে পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে পাহাড়ি প্রাণের উৎসব বৈসাবি পালিত ঝিনাইদহে শেষ মুহুর্তে জমে উঠেছে ঈদের বাজার ঝিনাইদহে ঈদ উপলক্ষে অস্বচ্ছল পরিবারের মাঝে ঈদ সামগ্রী বিতরণ ঝিকরগাছায় সেবা’র চার শতাধিক ব্যক্তির মাঝে ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরণ গরীব অসহায় ও দুস্থদের মাঝে কোটচাঁদপুর ব্লাড ব্যাংকের উদ্দ্যোগে ঈদ সামগ্রী বিতরণ ঝিকরগাছা ফেমাস ক্লিনিক কাগজে কলমে বন্ধ, ভেতরে চলছে অপারেশন সহ সবকিছু বেনাপোলের কিশোরীর মরদেহ যশোরে উদ্ধার ঝিনাইদহে বিশ্ব অটিজম সচেতনতা দিবস পালিত এতিমদের সাথে “শার্শা উপজেলা সাংবাদিক ঐক্য পরিষদ” এর ইফতার আয়োজন

কালীগঞ্জে নেক ব্লাষ্টে দিশেহারা কৃষক জানেন না কৃষি কর্মকর্তারা

Reporter Name
  • Update Time : মঙ্গলবার, ১১ এপ্রিল, ২০২৩
  • ১৬৫ Time View
কালীগঞ্জে নেক ব্লাষ্টে দিশেহারা কৃষক জানেন না কৃষি কর্মকর্তারা
কালীগঞ্জে নেক ব্লাষ্টে দিশেহারা কৃষক জানেন না কৃষি কর্মকর্তারা

বসির আহাম্মেদ,ঝিনাইদহ প্রতিনিধি- ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলার বিভিন্ন মাঠে ধানের নেক ব্লাস্ট রোগ দেখা দিয়েছে। এতে ধানের শীষ শুকিয়ে যাচ্ছে। হঠাৎ কয়েক দিনের ব্যবধানে এসব ক্ষেতের ধানে এ রোগ দেখা দেয়। বিশেষ করে ব্রি-৬৩ ধানে এ রোগ বেশি দেখা দিয়েছে। কিছু কিছু ২৮ ধাানের ক্ষেতেও এ রোগ মিলছে। অনেকে ঋণ ও ধার দেনা করে চাষ করছেন। ধান নষ্ট হয়ে যাওয়া তারা এখন দিশেহারা। তবে ধানের এ সমস্যার কথা কিছুই জানেন না সংশ্লিষ্ট এলকার উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা ও উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা। বিষয়টি তাদের অবগত করালে জানান, আজ মিটিং এ আছি কাল খোঁজ নিয়ে দেখবো। চলতি ইরি মৌসুমে কালীগঞ্জ উপজেলায় ১৫ হাজার ৭১৫ হেক্টর জমিতে ধানের চাষ হয়েছে।

এরমধ্যে ব্রি ধান ৬৩ চাষ হয়েছে ৩ হাজার ৪০০ হেক্টর জমিতে। তবে এ রোগ দেখা দিলে ট্রাইসাইক্লাজল গ্রুপের ট্রুপার স্প্রে করার পরামর্শ দিয়েছেন সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, কালীগঞ্জ উপজেলার রায়গ্রাম ইউনিয়নের খামারমুন্দিয়া গ্রামের মাঠে তরিকুল ইসলামের এক বিঘা, দলিল উদ্দীনের এক বিঘা ও মোমিন উদ্দীনের দুই বিঘাসহ ওই এলাকার বেশ কিছু জমির ধান হঠাৎ শুকিয়ে যাচ্ছে। একই ভাবে ইউনিয়নের রায়গ্রামের মাঠে তপন কুমার মন্ডলের ৮ শতক ও পরিতোষ ঘোষের এক একর জমির ধান শুকিয়ে গেছে। শিমলা-রোকনপুর ইউনিয়নের মনোহরপুর গ্রামের মনজের আলীর দুই বিঘা ধান শুকিয়ে যাচ্ছে। তবে কি কারণে এমনটি হচ্ছে এ বিষয়ে দ্বায়িত্বপ্রাপ্ত উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তার সাথে কথা হয়েছে কিনা জানতে চাইলে কৃষকরা তাদের চেনেন না বলে উল্লেখ করেন। রায়গ্রাম ইউনিয়নের খামারমুন্দিয়া গ্রামের কৃষক দলিল উদ্দীন জানান, চলতি ইরি মৌসুমে আমি দুই বিঘা জমিতে ধান চাাষ করেছিলাম।

এরমধ্যে এক বিঘা জমিতে ব্রি-৬৩ ধান ছিল। গত কয়েকদিন আগে মাঠে গিয়ে দেখি কিছু কিছু ধানের শীষ সাদা হয়ে যাচ্ছে। এসময় স্থানীয় কীটনাশক ও সার ব্যবসায়ীর পরামর্শে ওষুধ স্প্রে করি কিন্তু কোন কাজ হয়নি। কয়েকদিনে মধ্যে জমির সব ধান সাদা হয়ে গেছে। এখন ওই জমিতে একটি ধান আর হবে না। কৃষি কর্মকর্তাকে বিয়য়টি জানিয়েছেন কিনা প্রশ্নে তাকে চিনি না এবং তাকে কখনোা মাঠে আসতে দেখিনি বলে জানান।

কৃষক লালন হোসেন জানান, আমার এক বিঘা জমির ধান হঠাৎ শীষে পচন ধরে নষ্ট হয়ে গেছে। পাশ^বর্তী মনোহরপুর গ্রামের কৃষক মনজের আলী বলেন, এ বছর আমি দুই বিঘা জমিতে ২৮ ও ৬৩ ধানের চাষ করেছিলাম। গত কয়েক দিনে হঠাৎ ধানের শীষের গলায় পচন ধরে নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। জমির অর্ধেকের বেশি ধান নষ্ট হয়ে গেছে। এখন কি করবো বুঝতে পারছি না। কৃষি অফিসাররাও আমাদের কোন খোঁজ খবর নেয় না বলে উল্লেখ করেন। একই ইউনিয়নের মেগুরুখদ্দা গ্রামের কৃষক ইমদাদ হোসেন জানান, আমার জমির পাশে তপন কুমার মন্ডল নামে এক কৃষক ৮ শতক জমিতে ২৮ ধান করেছিল। গত কয়েকদিনে জমির সব ধান লাল রং হয়ে নষ্ট হয়ে গেছে। রায়গ্রাম ইউনিয়নের দ্বায়িত্বে থাকার উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তা জাকারিয়া রায়হান জানান, আমি এখন মিটিং এ আছি। অতিরিক্ত গরমের কারনে ধানের এমন হচ্ছে। আমি কাল বিষয়টি দেখবো। কালীগঞ্জ উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মোঃ মাহবুব আলম রনি জানান, কোন কৃষক আমাদের এখনো জানায়নি। তবে গরমের কারনে এমনটি হতে পারে অথবা ছত্রাকের কারনেও ধানে পচন ধরে শুকিয়ে যেতে পারে। পচন রোগ দেখা দিলে ট্রাইসাইক্লাজল গ্রুপের ট্রুপার স্প্রে করার পরামর্শ দেন তিনি।

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category
© All rights reserved © 2023 SN BanglaNews
কারিগরি সহযোগিতায়: